প্রথমপাতা

  • আন্তর্জাতিক নারী দিবস- ২০১৮ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা

চারঘাট পৌরসভার পটভুমিঃ-

৯ জুলাই , ১৯৯৮ সাল। প্রকৃতিতে ছিল বর্ষাকাল। প্রমত্তা পদ্মায় মৃদু মন্দ ঢেউ-এ ছিল খুশির নাচন। ঠিক এমনই মাহেন্দ্রক্ষণে চারঘাট উপজেলার ০৫ নং চারঘাট ইউনিয়নের ১০টি মৌজার ১৮.৭৩ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে ৯টি ওয়ার্ডের সমন্বয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল চারঘাট পৌরসভা। প্রতিষ্ঠাকালীন চারঘাট ‘গ’ শ্রেনির পৌরসভা হলেও বিগত ৩১ মে/২০১১ ইং তারিখে ‘খ’ শ্রেনির পৌরসভায়
উন্নীত হয়।

ভৌগলিক অবস্থানঃ-

অবকাঠামো- মোট রাস্তাঃ ১০১ কি.মি; (বিসি-৭৬.০০ কি.মি. , আরসিসি/সিসি-২.৫০ কি.মি. , কাঁচা – ৯.৫০ কি.মি. , এইচবিবি-৪.০০ কি.মি. , বিএফএস- ৪.০০ কি.মি. ,ডাব্লিউবিএম – ৫.০০ কি.মি.)। মোট ড্রেনঃ ২৫.৫৯ কি.মি. ; (আরসিসি – ১৭.০০ কি.মি. ,ব্রিকম্যাসনরি – ০.৮০ কি.মি. , কাঁচা – ৭.৭৯ কি.মি. )।

অবকাঠামোঃ-

মোট রাস্তাঃ ১০১ কি.মি; (বিসি-৭৬.০০ কি.মি. , আরসিসি/সিসি-২.৫০ কি.মি. , কাঁচা – ৯.৫০ কি.মি. , এইচবিবি-৪.০০ কি.মি. , বিএফএস- ৪.০০ কি.মি. ,ডাব্লিউবিএম – ৫.০০ কি.মি.)।মোট ড্রেনঃ ২৫.৫৯ কি.মি. ; (আরসিসি – ১৭.০০ কি.মি. ,ব্রিকম্যাসনরি – ০.৮০ কি.মি. , কাঁচা – ৭.৭৯ কি.মি. )।

চারঘাট পৌরসভার নামকরণঃ-

চারঘাট পৌরসভাটি চারঘাট উপজেলা শহর ও চারঘাট ইউনিয়নের সিংহভাগ এলাকা নিয়ে গঠিত বলে চারঘাট পৌরসভা হিসেবে নামকরন করা হয়েছে। এখানকার উপজেলা এবং থানার নামও চারঘাট । এটি মূলত পদ্মানদী কেন্দ্রীক প্রাচীন ব্যবসা কেন্দ্র। জনশ্রুতি আছে প্রাচীন কালে পদ্মা নদীর চারটি স্টীমার ঘাটের মাধ্যমে এখানকার ব্যবসা বানিজ্য পরিচালিত হতো , এজন্য কাল ক্রমে এ জনপদের নাম চারঘাট হয়েছে।

গুরত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠানঃ

বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমী অবিভিক্ত ভারত বর্ষের একমাত্র প্রতিষ্ঠান যা বাংলাদেশ উত্তরাধিকার সুত্রে পেয়েছে এবং পাকিস্থান আমলে প্রতিষ্ঠিত রাজশাহী ক্যাডেট কলেজ, সরদহ সরকারী বালক বিদ্যালয় ও সরদহ সরকারী কলেজ এছাড়া উপজেলা প্রশাসন অফিস , চারঘাট মডেল থানা , উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও থানাপাড়া সোয়ালোজ উল্লেখযোগ্য।

আর্থসামাজিক অবস্থানঃ

ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী – ২৫.৫৯% , কৃষিজীবি ও খামারী – ২২.৪৩% , সরকারী চাকুরীজীবি – ১০.৮২%, দক্ষ শ্রমিক -৮.৯৭% , বেকার – ৮,৭১% , বেসরকারী চাকুরীজীবি -৫.০১% , অদক্ষ শ্রমিক-৪.২২% , রিক্সা – ভ্যানচালক – ৩.৬৯% ,শিক্ষক-৩.৭১% ,গৃহপরিচারিকা – ২.৬৪% , বড়ব্যবসায়ী -২.৬৩%, হস্তশিল্প-০.৭৯% , শিক্ষার্থী -০.৫৩% এবং হকার – ০.২৬%।